অসীম রিয়াজ না, সিদ্ধার্থই ছিনিয়ে নিলেন শিরোপা। ‘বিগ বস-১৩’-র খেতাব ‘অ্যাংরি ম্যানে’রই মাথায়!

বিগ বসের ইতিহাসে নাকি সবচেয়ে বিতর্কিত সিজন! হিনা-শিল্পার ঝগড়ার থেকেও নাকি বেশি কুটকচালি এই সিজনেই। আর সেই ‘বিতর্কিত সিজন’ অর্থাৎ ‘বিগ বস্-১৩’-র বিজয়ীর খেতাব জিতে নিলেন, অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লা। অসীম রিয়াজকে হারিয়ে প্রথম পুরস্কার পেলেন তিনি। ট্রফি আর ৪০ লক্ষ টাকা নগদ পুরস্কার উঠল তাঁর হাতে। তৃতীয় হলেন সেহনাজ কৌর (গিল)। আর ১০ লাখের সুটকেস নিয়ে আগেভাগেই প্রতিযোগিতা থেকে সরে গেলেন পরশ ছাবড়া।

যদিও, বিগ বস্ মানে কোনদিন বিতর্ক হয়নি, তা নিয়েই গবেষণা হতে পারে অজস্র। বিগত ১২ টি সিজনেই ছিল বিতর্কের ছড়াছড়ি। কখনও বিগ বসের ঘরের জেল না, আসল জেলেও যেতে হয়েছে কোনও প্রতিযোগীকে। সলমনের প্রকাশ্যে ‘বকা’, প্রতিযোগীদের বিতর্কিত শব্দ বলা, মারামারি, প্রেম, খুনসুটি, লবি বাজি, কী এই হয়নি এই ঘরে!

বিশেষত, সেহেনাজ এবং সিদ্ধার্থের প্রেম, সিড-নাজ জুটি জায়গা করে নিতে থাকে একটা অংশের দর্শকদের মধ্যে। এদিকে অসীম রিয়াজের জনপ্রিয়তাও ছিল তুঙ্গে। সম্প্রতি, জন সিনহার তাঁকে নিয়ে পোস্ট, এই জনপ্রিয়তার মাত্রা বাড়ায় কয়েকগুন। কিন্তু ফাইনালে আর জেতা হল না তাঁর। দ্বিতীয় তকমা নিয়েই, হিনা খানের মতো হারাতে হল ট্রফি। আর সিডের নাজ থাকলেন তৃতীয় হয়েই। ফাঁকে ১০ লাখ তুলে নিলেন পরশ ছাবড়া!

এদিন ফাইনালে পরপর চলতে থাকে প্রক্রিয়া। ক’দিন আগে থেকেই ভোটিং লাইন খুলে দেয়, ভারতের জনপ্রিয় এই ‘শো’র শর্ত পাওয়া বেসরকারি ওই চ্যানেল। চলতে থাকে ভোট পর্ব। কিন্তু সেখানেও প্রথম সিদ্ধার্থ! বহু মেয়ের চোখের মণি, সুঠাম দেহের অধিকারী অসীম আর সিদ্ধার্থের হাত ধরে, সিদ্ধার্থের হাত তুলে ধরে বিজয়ী ঘোষণা করেন সলমন খান।

এই ঘোষণার পর, স্বাভাবিভাবেই খুশি নন, রিয়াজ ফ্যানরা। কেউ কেউ তো অভিযোগ করেছে ‘সেটিংয়ে’র। যদিও, প্রত্যেক সিজনেই এই অভিযোগ হেরে যাওয়া প্রতিযোগীর ফ্যানরা তুলেই থাকেন। সবকিছু পেরিয়ে এখন শুভেচ্ছার বন্যায় ভাসছেন নাজের সিড। মঞ্চেই যাঁর চুমুতে কাত ‘বিগ বস-১৩’ -র ‘বস্’।

১৬.০২.২০২০

P.C: Tweeter